বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ, নির্যাতন করে গর্ভপাত

prothom alo
বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি | আপডেট: ০০:৩৪, নভেম্বর ২৬, ২০১৬ | প্রিন্ট সংস্করণ
দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে এক নারীকে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা ওই নারী গত বৃহস্পতিবার গর্ভের সন্তানের স্বীকৃতি দাবি করায় নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। এতে তাঁর গর্ভপাত হয়। ৩৬ বছর বয়সী ওই নারীর বাড়ি উপজেলার মাহমুদপুর ইউনিয়নের একটি গ্রামে। বর্তমানে তিনি নবাবগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি আছেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই নারী গতকাল শুক্রবার রাতে প্রথম আলোকে বলেন, সাত বছর আগে তাঁর স্বামী মারা যান। এরপরও তিনি শাশুড়ির সঙ্গে থাকেন। দুই বছর আগে হবিবর রহমান (৩৭) নামের এক ব্যক্তির সঙ্গে তাঁর শারীরিক সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এতে তিনি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে বিয়ের জন্য হবিবরকে চাপ দেওয়া শুরু করেন। Continue reading

Advertisements

গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ

prothom alo
বাগমারা (রাজশাহী) প্রতিনিধি | আপডেট: ০০:৫৭, নভেম্বর ২৫, ২০১৬ | প্রিন্ট সংস্করণ
রাজশাহীর বাগমারায় পারিবারিক বিরোধের জের ধরে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে ও শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত বুধবার রাতে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে পুলিশ। নিহত ওই গৃহবধূর নাম আদরী রানী (৩৮)। তিনি উপজেলার আউচপাড়া ইউনিয়নের কানাইশহর গ্রামের দুলাল চন্দ্রের স্ত্রী। এই ঘটনার পর থেকে দুলাল পলাতক। আদরীর বড় ভাই নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজেলার হাওড়া গ্রামের উজ্জ্বল কুমার অভিযোগ করেন, কয়েক বছর আগে বাগমারার কানাইশহর গ্রামের দুলালের সঙ্গে তাঁর বোনের বিয়ে হয়। সম্প্রতি দুলাল মাদকাসক্ত হয়ে পড়েন। এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বিরোধ দেখা দেয়। গত বুধবার বিকেলে বিরোধের জের ধরে আদরী রানীকে পেটান ও শ্বাসরোধে হত্যা করেন দুলাল। Continue reading

সরিষাবাড়ীতে যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ

prothom alo
সরিষাবাড়ী (জামালপুর) প্রতিনিধি | আপডেট: ০০:৩৭, নভেম্বর ২৪, ২০১৬ | প্রিন্ট সংস্করণ
যৌতুক না পেয়ে এক গৃহবধূকে তাঁর স্বামী শ্বাসরোধে হত্যা করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলার ভাটারা বাজারে গতকাল বুধবার এ ঘটনা ঘটে। নিহত গৃহবধূর নাম তাপসী বেগম (২৫)। তিনি জামালপুর সদর উপজেলার ছাইতেনী গ্রামের আবদুল লতিফের ছেলে লাভলু মিয়ার স্ত্রী। ঘটনার পর থেকে লাভলু মিয়া পলাতক। পুলিশ ও নিহত গৃহবধূর পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, চার বছর আগে সরিষাবাড়ী পৌরসভার বাউসী চন্দনপুর গ্রামের কৃষক তোফাজ্জল হোসেনের মেয়ে তাপসী বেগমের সঙ্গে লাভলু মিয়ার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে লাভলু মিয়া যৌতুকের জন্য তাপসী বেগমকে নির্যাতন করে আসছিলেন। Continue reading

গৃহবধূকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ

prothom alo
সরিষাবাড়ী প্রতিনিধি | আপডেট: ১৩:২৪, নভেম্বর ২৩, ২০১৬
জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলায় এক গৃহবধূকে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ বুধবার বেলা ১১টায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত গৃহবধূর নাম তাপসী বেগম (২৫)। তিনি সরিষাবাড়ী পৌরসভার চন্দনপুর গ্রামের তোফাজ্জল হোসেনের মেয়ে। গৃহবধূর পরিবারের দেওয়া তথ্যের বরাত দিয়ে পুলিশ বলছে, তাপসীকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় তাপসীর স্বামী লাভলু মিয়ার বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। নিহত তাপসী বেগমের বাবা তোফাজ্জল হোসেন জানান, চার বছর আগে পারিবারিকভাবে তাপসী ও লাভলু মিয়ার বিয়ে হয়। বিয়ের সময় লাভলু মিয়াকে ৫০ হাজার টাকা যৌতুক দেওয়া হয়। তাঁদের তিন বছরের একটি সন্তান রয়েছে। Continue reading

গৃহবধূর লাশ উদ্ধার, বাবার দাবি হত্যা

prothom alo
গাইবান্ধা প্রতিনিধি | আপডেট: ০১:০৪, নভেম্বর ২০, ২০১৬ | প্রিন্ট সংস্করণ
গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার মহিমাগঞ্জ রেলস্টেশনসংলগ্ন এলাকা থেকে গতকাল শনিবার শাম্মি আক্তার (১৯) নামের এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শাম্মি উপজেলার রাখালবুরুজ গ্রামের সাফি সরকারের স্ত্রী। তবে শাম্মির বাবা জহুরুল ইসলাম অভিযোগ করে বলেন, ‘আমার মেয়েকে সাফি সরকার ও তার লোকজন পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে। আমি এর বিচার চাই।’ গাইবান্ধা রেলওয়ে থানার পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, শাম্মির বাবার বাড়ি উপজেলার মহিমাগঞ্জ ইউনিয়নের পুনতাইর চরপাড়া গ্রামে। দেড় বছর আগে শাম্মির সঙ্গে রাখালবুরুজ গ্রামের আবদুল জব্বারের ছেলে সাফি সরকারের বিয়ে হয়। শাম্মি ও সাফি পছন্দ করে বিয়ে করায় মেয়ের বাবা-মা তা মেনে নেননি। বিয়ের পর থেকে শাম্মি বাবার বাড়ি পুনতাইর চরপাড়া গ্রামে ছিলেন। Continue reading

যৌতুকের টাকা না পেয়ে কাঁচি দিয়ে খুঁচিয়ে জখম

prothom alo
আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি | আপডেট: ০০:২৫, নভেম্বর ১৮, ২০১৬ | প্রিন্ট সংস্করণ
স্বামীর নির্মম নির্যাতনের শিকার হয়ে পাঁচ দিন ধরে নওগাঁর রানীনগর উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চিকিৎসা নিচ্ছেন গৃহবধূ ও এক সন্তানের জননী চাম্পা খাতুন (২৫)। যৌতুকের টাকা দিতে না পারায় গত রোববার সন্ধ্যায় স্বামী উজ্জ্বল হোসেন (৩৫) কাপড় কাটার কাঁচি  দিয়ে খুঁচিয়ে চাম্পা খাতুনকে জখম করেন। পরে প্রতিবেশীদের ধাওয়া খেয়ে গুরুতর আহত অবস্থায় স্ত্রীকে ফেলে পালিয়ে যান উজ্জ্বল। ওই গৃহবধূর শরীরে কাঁচি দিয়ে ১২৪টি স্থানে জখম করা হয়েছে। গ্রামবাসী ও আহত গৃহবধূর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, উপজেলার কাশিমপুর ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের খোরশেদ আলমের মেয়ে চাম্পার সঙ্গে একই গ্রামের কাছের আলী মণ্ডলের ছেলে উজ্জ্বলের সাত বছর আগে বিয়ে হয়। Continue reading

নোয়াখালী ও ফেনীতে দুই গৃহবধূকে হত্যা

prothom alo
নোয়াখালী অফিস | আপডেট: ০১:৪৫, নভেম্বর ১৭, ২০১৬ | প্রিন্ট সংস্করণ
নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার ছয়ানী ইউনিয়নের কালিকাপুর গ্রামে সোমা দেবনাথ (১৯) নামের এক গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গৃহবধূ সোমা দেবনাথের বড় ভাই একই ইউনিয়নের ভববদ্দি গ্রামের সুজন দেবনাথ প্রথম আলোকে বলেন, ২০১৫ সালের জুলাইয়ে কালিকাপুর গ্রামের সুমন চন্দ্র দেবনাথের সঙ্গে তাঁর বোনের বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিন পর সুমন বিদেশে চলে যান। এরপর শাশুড়ি জোছনা রানী নানা অজুহাতে প্রায়ই তাঁর বোনের ওপর নির্যাতন চালাতেন। সুজন দেবনাথ অভিযোগ করেন, গত মঙ্গলবার দুপুরেও তাঁর বোনকে মারধর করা হয়, যা তাঁর বোন মুঠোফোনে তাঁকে জানিয়েছিলেন। এরপর বিকেলে অনেকবার ফোন করলেও সোমার মুঠোফোন বন্ধ পাওয়া যায়। পরে বিকেল সাড়ে চারটার দিকে তিনি শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে দেখেন তাঁর বোন বসতঘরের একটি কক্ষের মেঝেতে হাঁটু গেড়ে বসার মতো করে পড়ে আছেন। তাঁর গলায় প্যাঁচানো শাড়ি ঝুলছিল ঘরের আড়ার সঙ্গে। Continue reading