রূপগঞ্জে গৃহবধূকে পিটিয়ে জখম

jugantor
রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) | প্রকাশ : ১৬ আগস্ট, ২০১৬ ০০:০০:০০
রূপগঞ্জে ভরণ-পোষণ চাওয়ায় স্বামী ফেরদৌসী বেগম নামে এক গৃহবধূর ওপর নির্যাতন চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার দুপুরে উপজেলার তারাব এলাকায় ঘটে এ নির্যাতনের ঘটনা। জানা যায়, ১২ বছর আগে উপজেলার তারাব এলাকার মৃত বাচ্চু মিয়ার ছেলে অপু মিয়ার সঙ্গে ফেরদৌসী বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের সংসারে সুমাইয়া আক্তার মীম ও সাদিয়া আফরিন নামে দুটি কন্যাসন্তানের জন্ম হয়। ফেরদৌসী বেগম কিছুদিন পর জানতে পারেন অপু মিয়া তার অনুমতি ছাড়া আরেকটি বিয়ে করেন। অপু মিয়া সংসার চালানোর জন্য কোনো খরচ দিত না। ফেরদৌসী বেগম সংসারের খরচ দিতে বলা হলে অপু মিয়া তার ওপর নির্যাতন চালাত। এর জের ধরেই সোমবার দুপুরে অপু ও তার দ্বিতীয় স্ত্রী পিয়ারা বেগম মিলে ঘরে প্রবেশ করে ফেরদৌসী বেগমকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে জখম করে। পরে ফেরদৌসী বেগমকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এ ব্যাপারে রূপগঞ্জ থানার ওসি ইসমাইল হোসেন বলেন, এ ধরনের একটা অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত মোতাবেক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তথ্যসূত্র: যুগান্তর, ১৬ আগস্ট, ২০১৬

স্ত্রীকে শিকলে বেঁধে নির্যাতন!

prothom alo
নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট: ০১:৩৭, জুন ৩০, ২০১৬ | প্রিন্ট সংস্করণ
রাজধানীর মোহাম্মদপুর ঢাকা উদ্যান এলাকার ভাড়া বাসায় এক গৃহবধূকে পাঁচ দিন ধরে স্ত্রীকে শিকল দিয়ে বেঁধে নির্যাতন করা হয়েছে। সুমাইয়া আক্তার (১৯) নামের এই গৃহবধূ গতকাল বুধবার সুযোগ বুঝে বাসা থেকে পালিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন। তাঁর শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। হাসপাতালে সুমাইয়া সাংবাদিকদের বলেন, ঢাকা উদ্যানের চন্দ্রিমা হাউজিংয়ে তাঁদের বাসা। তিন বছর আগে প্রেম করে বিয়ে করেন ইউনূসকে। বিয়ের পর স্বামী মাদকাসক্ত হয়ে পড়েন। টাকার জন্য তাঁকে শুরু করেন নির্যাতন। তবে গত শুক্রবার থেকে হাতে শিকল বেঁধে বেলন দিয়ে পেটাতে থাকেন তিনি।

তথ্যসূত্র:  প্রথম আলো, ৩০ জুন,  ২০১৬

যশোরে গৃহবধূর চুল কাটল শাশুড়ী-ননদ

ittefaq
যশোর অফিস ০৭ জুন, ২০১৬ ইং
‘কালো-সাদা’ নিয়ে বিবাদে মাথার চুল হারালেন গৃহবধূ রত্না বেগম (২৪)। গত রবিবার দুপুরে শাশুড়ী, ননদ মিলে মাথার চুল কেটে দিয়েছে ওই গৃহবধূর। রবিবার দুপুর আড়াইটার দিকে যশোর সদর উপজেলার তফসীডাঙ্গা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নির্যাতিত গৃহবধূ রত্না বেগম ওই গ্রামের মহিউদ্দিন সাগরের স্ত্রী ও মনিরামপুরের শরণপুর গ্রামের মাহাবুবুর রহমান বাবলুর মেয়ে। গৃহবধূ রত্না বেগম জানান, তার গায়ের রঙ পরিষ্কার। অন্যদিকে তার শাশুড়ী, ননদসহ অন্য সদস্যদের গায়ের রঙ কালো। এই নিয়ে প্রায়ই শাশুড়ী-ননদের সাথে তার বিবাদ হতো। রবিবার দুপুরেও এ নিয়ে গোলযোগ শুরু হয়। একপর্যায়ে শাশুড়ী নাজমা বেগম ও ননদ শাপলা খাতুন কাঁচি দিয়ে রত্নার মাথার সামনের অংশের প্রায় অর্ধেক চুল কেটে দেন। পরে খবর পেয়ে ওই গৃহবধূর মা ও বোন ছুটে আসেন। এরপর রাতে থানায় গিয়ে অভিযোগ দেন।

তথ্যসূত্র: দৈনিক ইত্তেফাক, ০৭ জুন,  ২০১৬

কন্যাসন্তান হওয়ায় গৃহবধূর হাত ভেঙে দিলেন স্বা

prothom alo
পাটগ্রাম (লালমনিরহাট) প্রতিনিধি | আপডেট: ০১:৫৭, মার্চ ২৭, ২০১৬ | প্রিন্ট সংস্করণ
লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার সানিয়াজান ইউনিয়নের নিজ শেখ সুন্দর গ্রামে কন্যাসন্তান জন্ম দেওয়ায় গত শুক্রবার রাতে আঞ্জুয়ারা বেগম (২৪) নামের এক গৃহবধূকে বেদম প্রহার করেন তাঁর স্বামী। এতে আঞ্জুয়ারার মাথা ফেটে যায় ও বাঁ হাত ভেঙে যায়। তাঁকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
আঞ্জুয়ারা উপজেলার গড্ডিমারী ইউনিয়নের গড্ডিমারী গ্রামের আবদুল আজিজের মেয়ে।
Continue reading

বিরামপুরে গৃহবধূকে পিটিয়ে গুরুতর জখম

prothom alo
বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি | আপডেট: ০১:৫৩, মার্চ ১৫, ২০১৬ | প্রিন্ট সংস্করণ
দিনাজপুরের বিরল উপজেলার কাশিডাঙ্গা গ্রামে ববিতা রানি নামের এক গৃহবধূ গত রোববার শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। তাঁর স্বামী তাঁকে চেলা দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর জখম করেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তাঁকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
চিকিৎসাধীন ববিতা (২৮) গতকাল সোমবার প্রথম আলোকে বলেন, আগের দিন সকালে ঝুপ বৃষ্টি নামে। এ সময়ে জ্বালানির খড়ি ঘরে তুলতে দেরি হওয়ায় চেলা দিয়ে তাঁর স্বামী তাঁকে বেদম প্রহার করেন। পরে প্রতিবেশীরা তাঁকে উদ্ধার করে এই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান।
Continue reading

সালিস অমান্য করায় গৃহবধূকে নির্যাতন

prothom alo
ভোলা প্রতিনিধি | আপডেট: ০২:৫৫, মার্চ ১৪, ২০১৬ | প্রিন্ট সংস্করণ
ভোলার লালমোহন উপজেলার পাঙ্গাশিয়া গ্রামে সালিস অমান্য করায় গত শনিবার এক গৃহবধূকে পিটিয়ে জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই গৃহবধূ চরফ্যাশন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিয়েছেন। নির্যাতনের শিকার গৃহবধূ মোছা. জান্নাত বলেন, প্রায় পাঁচ বছর আগে পাঙ্গাশিয়ার আরশাদ উল্যাহ মিস্ত্রির সঙ্গে তাঁর বিয়ে হয়। বুধবার রাতে পারিবারিক কলহের জের ধরে আরশাদ তাঁকে মারধর করেন। পরদিন বৃহস্পতিবার সকালে জান্নাত বাবার বাড়ি চলে যাওয়ার চেষ্টা করেন। পশ্চিম উমেদ ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ৭ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য আশরাফ হোসেন তাঁর পথ রোধ করে বিষয়টি শনিবার সন্ধ্যায় মীমাংসা করার কথা বলে তাঁকে স্বামীর ঘরে পাঠিয়ে দেন। এর মধ্যে স্বামী আরশাদ ঘটনাটি এলাকার প্রভাবশালী মো. মামুন কমান্ডার নামের একজনকে জানান।
Continue reading

নেশার টাকা না দেয়ায় স্ত্রীর গায়ে আগুন

jugantor
কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি    |   প্রকাশ : ০৭ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০:০০
গাজীপুরে অগ্নিদগ্ধ গৃহবধূ গৃহবন্দি
গাজীপুর মহানগরের দক্ষিণ লস্করচালা গ্রামের লিয়াকতের বাড়িতে স্বামীর দেয়া আগুনে দগ্ধ গৃহবধূ গত ১০ দিন ধরে গৃহবন্দি হয়ে মৃত্যুর প্রহর গুনছেন। নেশাগ্রস্ত স্বামী আনোয়ার হোসেন স্ত্রী গার্মেন্টকর্মী নিলুফা আক্তার পারভীনের কাছে নেশার টাকা চেয়ে না পেয়ে ২৬ ফেব্র“য়ারি বিকালে দেয়াশলাই দিয়ে শরীরের কাপড়ে আগুন ধরিয়ে দেন। ওই সময় নিলুফা আক্তার পারভীনের শরীরে আগুন ধরে গেলেও পাষণ্ড স্বামী আগুন নেভাতে এগিয়ে আসেননি। বরং স্বামী নিলুফাকে ঘরে রেখে বাহির থেকে তালা লাগিয়ে দেন। এতে নিলুফা নিজেকে বাঁচানোর জন্য বাড়ির আশপাশের লোকজনকে ডাকা-ডাকি করে না পেয়ে ঘরের মেঝেতে গড়াগড়ি দিতে থাকেন। এতে শরীরের আগুন নিভে গেলে নিলুফা আক্তার অজ্ঞান হয়ে যান। পরের দিন ভোরে জ্ঞান ফিরে এলে নিজের শরীরে আগুনে ঝলসে যাওয়ার দৃশ্য দেখে কেঁদে ফেলেন। ঘরের বাহিরে তালা থাকায় নিলুফা জানালা দিয়ে শাশুড়ি ও ননদদের ডেকেও কাছে না পেয়ে অসহ্য যন্ত্রণায় ছটফট করতে থাকেন।
Continue reading